ঢাকা , শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
রমজানে মাধ্যমিক স্কুল খোলা থাকবে ১৫ দিন, প্রাথমিক স্কুল ১০ দিন খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে টেকনাফ সীমান্তের হোয়াইক্যং এলাকা দিয়ে আজ অস্ত্র নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে মিয়ানমারের সেনা সাদ সাহেব রুজু করার পর দেওবন্দের মাসআলা খতম হয়ে গেছে : মাওলানা আরশাদ মাদানী চলছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের দ্বিতীয় দিনের বয়ান পুলিশ সদস্যসহ বিশ্ব ইজতেমায় ৭ জনের মৃত্যু বর্তমান সরকারের সঙ্গে সব দেশ কাজ করতে চায়: পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়পুরহাটে স্কুলছাত্র হত্যায় ১১ জনের মৃত্যুদণ্ড দ্বাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন শুরু ‘শরীফ থেকে শরীফা’ গল্প পর্যালোচনায় কমিটি গঠন করলো শিক্ষা মন্ত্রণালয়

আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে পাকিস্তানে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু হয়েছে

  • নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : ০৮:৩৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২৪
  • ৫৩১ পঠিত

নওয়াজ শরীফ বলেছেন, ‘২০১৩ সালের পর আপনাদের সামনে আসতে পেরে আমার ভালো লাগছে। কিন্তু যখন দেশের আর্থিক অবস্থা দেখছি, তখনই আমার এই আনন্দ চলে যাচ্ছে। দেশ একটা আর্থিক সংকটের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতি থেকে বের হয়ে আসাটা বড় চ্যালেঞ্জ।’

নওয়াজের দাবি, ‘যদি পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ তার বিরুদ্ধে রায় না দিত, তাহলে দেশের এই অবস্থা হত না। আমি এই পরিস্থিতি থেকে দেশকে ঘুরে দাঁড় করাতে পারব। আমি ক্ষমতা ছাড়ার পর থেকে দেশের অর্থনীতি নিয়ন্ত্রণহীন জায়গায় পৌঁছে গেছে।’

নওয়াজ জানান, আমি এখানে নির্বাচনে লড়তে এসেছি। আপনাদের ভোট ভিক্ষা করতে এসেছি। দেশের সমৃদ্ধি চাইলে আমাকে ভোট দিন।

ইমরান খানের নাম না করে দেশের অর্থনীতির বেহাল অবস্থার জন্য সাবেক ক্রিকেটার প্রধানমন্ত্রীকেই দায়ী করেছেন নওয়াজ। তিনি বলেছেন, ‘আমি যখন জেলে ও লন্ডনে ছিলাম, তখন দেশকে লুট করা হয়েছে।’

নওয়াজ বলেন, তিনি ক্ষমতায় এলে দেশের কোনো তরুণ বেকার থাকবেন না। সকলে কম দামে বিদ্যুৎ, জল, গ্যাস ও সবজি পাবেন।

Tag :
জনপ্রিয়

রমজানে মাধ্যমিক স্কুল খোলা থাকবে ১৫ দিন, প্রাথমিক স্কুল ১০ দিন

আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে পাকিস্তানে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু হয়েছে

প্রকাশিত : ০৮:৩৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২৪

নওয়াজ শরীফ বলেছেন, ‘২০১৩ সালের পর আপনাদের সামনে আসতে পেরে আমার ভালো লাগছে। কিন্তু যখন দেশের আর্থিক অবস্থা দেখছি, তখনই আমার এই আনন্দ চলে যাচ্ছে। দেশ একটা আর্থিক সংকটের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতি থেকে বের হয়ে আসাটা বড় চ্যালেঞ্জ।’

নওয়াজের দাবি, ‘যদি পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ তার বিরুদ্ধে রায় না দিত, তাহলে দেশের এই অবস্থা হত না। আমি এই পরিস্থিতি থেকে দেশকে ঘুরে দাঁড় করাতে পারব। আমি ক্ষমতা ছাড়ার পর থেকে দেশের অর্থনীতি নিয়ন্ত্রণহীন জায়গায় পৌঁছে গেছে।’

নওয়াজ জানান, আমি এখানে নির্বাচনে লড়তে এসেছি। আপনাদের ভোট ভিক্ষা করতে এসেছি। দেশের সমৃদ্ধি চাইলে আমাকে ভোট দিন।

ইমরান খানের নাম না করে দেশের অর্থনীতির বেহাল অবস্থার জন্য সাবেক ক্রিকেটার প্রধানমন্ত্রীকেই দায়ী করেছেন নওয়াজ। তিনি বলেছেন, ‘আমি যখন জেলে ও লন্ডনে ছিলাম, তখন দেশকে লুট করা হয়েছে।’

নওয়াজ বলেন, তিনি ক্ষমতায় এলে দেশের কোনো তরুণ বেকার থাকবেন না। সকলে কম দামে বিদ্যুৎ, জল, গ্যাস ও সবজি পাবেন।