ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নারায়ণগঞ্জে ইউএনও শুক্লা সরকার কোভিডে আক্রান্ত

  • Fahim Hasan
  • প্রকাশিত : ০৫:৩৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ জুলাই ২০২০
  • ১১৮৬ পঠিত

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শুক্লা সরকার করোনাভাইরাসের সংক্রমণে আক্রান্ত হয়েছেন। গতকাল রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে তাঁর নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ বলে জানানো হয়।

ইউএনও শুক্লা সরকার প্রথম আলোকে বলেন, তাঁর করোনার উপসর্গ ছিল না। হালকা কাশি দেখা দিলে গত শনিবার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দেন তিনি। ওই নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। এরপর থেকে তিনি বাংলোতে আইসোলেশনে আছেন। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ খাচ্ছেন।

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনায় আক্রান্ত ৩ রোগী শনাক্ত হন। তাঁদের মধ্যে দুজন নারায়ণগঞ্জের। ৩০ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে এক নারীর মৃত্যু হয়। ৭ এপ্রিল করোনা সংক্রমণের জন্য নারায়ণগঞ্জকে অতি ঝুঁকিপূর্ণ জেলা হিসেবে চিহ্নিত করে আইইডিসিআর। পরদিন নারায়ণগঞ্জ জেলাকে অবরুদ্ধ ঘোষণা করে সরকার। করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২ চিকিৎসক, ১ স্টাফ নার্স, জেলা প্রশাসনের ১ কর্মচারীসহ ১২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ চিকিৎসক, ৪ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ ৫ হাজার ৭৫৭ জন। জেলায় মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৯ হাজার ৭৮১ জনের। আইসোলেশনে সুস্থ হয়েছে ৫ হাজার ১৪৩ জন।

Tag :

নারায়ণগঞ্জে ইউএনও শুক্লা সরকার কোভিডে আক্রান্ত

প্রকাশিত : ০৫:৩৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ জুলাই ২০২০

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শুক্লা সরকার করোনাভাইরাসের সংক্রমণে আক্রান্ত হয়েছেন। গতকাল রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে তাঁর নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ বলে জানানো হয়।

ইউএনও শুক্লা সরকার প্রথম আলোকে বলেন, তাঁর করোনার উপসর্গ ছিল না। হালকা কাশি দেখা দিলে গত শনিবার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দেন তিনি। ওই নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। এরপর থেকে তিনি বাংলোতে আইসোলেশনে আছেন। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ খাচ্ছেন।

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনায় আক্রান্ত ৩ রোগী শনাক্ত হন। তাঁদের মধ্যে দুজন নারায়ণগঞ্জের। ৩০ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে এক নারীর মৃত্যু হয়। ৭ এপ্রিল করোনা সংক্রমণের জন্য নারায়ণগঞ্জকে অতি ঝুঁকিপূর্ণ জেলা হিসেবে চিহ্নিত করে আইইডিসিআর। পরদিন নারায়ণগঞ্জ জেলাকে অবরুদ্ধ ঘোষণা করে সরকার। করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২ চিকিৎসক, ১ স্টাফ নার্স, জেলা প্রশাসনের ১ কর্মচারীসহ ১২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ চিকিৎসক, ৪ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ ৫ হাজার ৭৫৭ জন। জেলায় মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৯ হাজার ৭৮১ জনের। আইসোলেশনে সুস্থ হয়েছে ৫ হাজার ১৪৩ জন।