ঢাকা , শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
রমজানে মাধ্যমিক স্কুল খোলা থাকবে ১৫ দিন, প্রাথমিক স্কুল ১০ দিন খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে টেকনাফ সীমান্তের হোয়াইক্যং এলাকা দিয়ে আজ অস্ত্র নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে মিয়ানমারের সেনা সাদ সাহেব রুজু করার পর দেওবন্দের মাসআলা খতম হয়ে গেছে : মাওলানা আরশাদ মাদানী চলছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের দ্বিতীয় দিনের বয়ান পুলিশ সদস্যসহ বিশ্ব ইজতেমায় ৭ জনের মৃত্যু বর্তমান সরকারের সঙ্গে সব দেশ কাজ করতে চায়: পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়পুরহাটে স্কুলছাত্র হত্যায় ১১ জনের মৃত্যুদণ্ড দ্বাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন শুরু ‘শরীফ থেকে শরীফা’ গল্প পর্যালোচনায় কমিটি গঠন করলো শিক্ষা মন্ত্রণালয়

শেরপুরে কোভিড–১৯ রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ২৪৭ জনে

  • নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : ১২:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই ২০২০
  • ১২৭০ পঠিত

শেরপুরে আরও একজনের করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। তিনি ঝিনাইগাতী উপজেলার একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। এ নিয়ে জেলায় মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২৪৭ জনে। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৯৭ জন। আর মারা গেছেন তিনজন।

গতকাল বুধবার রাতে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাব থেকে পাঠানো প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে জেলার সিভিল সার্জন এ কে এম আনওয়ারুর রউফ এসব তথ্য জানান।

সিভিল সার্জন আনওয়ারুর রউফ বলেন, শেরপুরে করোনাভাইরাসের বিস্তার বাড়ছে। যথাযথভাবে স্বাস্থ্যবিধি না মানলে এর বিস্তার রোধ করা কোনোভাবেই সম্ভব নয়। তাই করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে মাস্ক ব্যবহারসহ কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে জেলাবাসীর প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

গতকাল পর্যন্ত শনাক্তদের মধ্যে শেরপুর সদরে ১০১ জন, নকলায় ৪৭ জন, নালিতাবাড়ীতে ৫৩ জন, ঝিনাইগাতীতে ২৫ জন ও শ্রীবরদী উপজেলায় ২১ জন আছেন। তাদের মধ্যে নয়জন চিকিৎসকসহ ৪৪ জন স্বাস্থ্যকর্মী আর ২৫ জন পুলিশ সদস্য আছেন।

Tag :
জনপ্রিয়

রমজানে মাধ্যমিক স্কুল খোলা থাকবে ১৫ দিন, প্রাথমিক স্কুল ১০ দিন

শেরপুরে কোভিড–১৯ রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ২৪৭ জনে

প্রকাশিত : ১২:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই ২০২০

শেরপুরে আরও একজনের করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। তিনি ঝিনাইগাতী উপজেলার একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। এ নিয়ে জেলায় মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২৪৭ জনে। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৯৭ জন। আর মারা গেছেন তিনজন।

গতকাল বুধবার রাতে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাব থেকে পাঠানো প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে জেলার সিভিল সার্জন এ কে এম আনওয়ারুর রউফ এসব তথ্য জানান।

সিভিল সার্জন আনওয়ারুর রউফ বলেন, শেরপুরে করোনাভাইরাসের বিস্তার বাড়ছে। যথাযথভাবে স্বাস্থ্যবিধি না মানলে এর বিস্তার রোধ করা কোনোভাবেই সম্ভব নয়। তাই করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে মাস্ক ব্যবহারসহ কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে জেলাবাসীর প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

গতকাল পর্যন্ত শনাক্তদের মধ্যে শেরপুর সদরে ১০১ জন, নকলায় ৪৭ জন, নালিতাবাড়ীতে ৫৩ জন, ঝিনাইগাতীতে ২৫ জন ও শ্রীবরদী উপজেলায় ২১ জন আছেন। তাদের মধ্যে নয়জন চিকিৎসকসহ ৪৪ জন স্বাস্থ্যকর্মী আর ২৫ জন পুলিশ সদস্য আছেন।